in

ব্যবহৃত জিনিস বিক্রির ৭টি সেরা ওয়েবসাইট

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন ধরনের আসবাবপত্র, ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস, কাপড়চোপড় ব্যবহার করে থাকি। ব্যবহৃত সেই জিনিসগুলোই একসময় আমাদের অপ্রয়োজনীয় বস্তুতে পরিণত হয়। আমরা অনেকেই হয়তো সেগুলোকে স্টোর রুমে বা ঘরের কোণে রেখে দেই। অনেকদিন ব্যবহার না করাতে সেগুলোতে ধুলো জমে থাকে, ফলে ঘরের সৌন্দর্যও নষ্ট হয়। তার চেয়ে বরং সেগুলো বিক্রি করে দিলে ভালো হয় না?

বাসা থেকে অপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রও বের করতে পারলেন, সাথে বাড়তি অর্থও উপার্জন হলো। আজকের আলোচনা থাকছে তেমনি ৭টি সেরা ওয়েবসাইট সম্পর্কে, যেখানে ব্যবহৃত জিনিসপত্র বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করা যায়।

১. ভিনটেড (Vinted)

www.vinted.be

আমরা সাধারণত যেকোনো পোষাক বা জুতা দীর্ঘ সময় ধরে ব্যবহার করি না। কিছুদিন ব্যবহার করার পর ফেলে দেই বা কাউকে দিয়ে দেই। কিন্তু আপনি চাইলে আপনার ব্যবহৃত পোষাকও অনলাইনে বিক্রি করতে পারবেন। ভিনডেট তেমনি একটি ওয়েবসাইট যেখানে পোষাক, জুতাসহ আনুষাঙ্গিক বিভিন্ন জিনিস বিক্রয় করতে পারবেন, যেগুলো আপনি আর কখনো ব্যবহার করবেন না। এছাড়াও এই ওয়েবসাইটটি হতে আপনি নতুন পোষাকও ক্রয় করতে পারবেন।

এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি বিভিন্ন দেশের ক্রেতা ও বিক্রেতাদের খুঁজে পাবেন যাদের সাথে আপনি নিজেও ব্যবসা করতে পারবেন। এমনকি এখান থেকে আপনি অনেকের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কও গড়ে তুলতে পারবেন।

ভিনটেড ওয়েবসাইটের লিংক: www.vinted.com

২. চাইরিস (Chairish)

আমাদের প্রত্যেকের বাসাতেই বিভিন্ন ধরনের ছোট-বড় আবসাবপত্র থাকে। যেগুলো আমরা প্রত্যাহিত জীবনের প্রয়োজনে ব্যবহার করে থাকি, যেমন- চেয়ার, টেবিল, বেড, আলমারির ইত্যাদি। তবে সেই সব আসবাবপত্র সারাজীবনের জন্য ব্যবহার করতে পারি না বা বিভিন্ন কারণে সেগুলো আর ব্যবহার করা হয় না। আবার সেই আসবাবপত্রগুলো ফেলেও দেওয়া যায় না। তাহলে কী করবেন সেই আসবাবপত্রগুলো?

এর উৎকৃষ্ট সমাধান দিতে পারে চাইরিস ওয়েবসাইট, যেখানে আপনার ব্যবহৃত আসবাবপত্রগুলো বিক্রয় করার মাধ্যমে নগদ অর্থ উপার্জন করতে পারেন। চাইরিস ওয়াবসাইটে যেকোনো ধরনের আসবাবপত্র এবং পরিবারের আনুষাঙ্গিক জিনিসপত্র অতি দ্রুত ও সহজেই বিক্রয় করা যায়। তবে আপনার বিক্রয়কৃত আসবাবপত্রের ২০% অর্থ চাইরিস কর্তৃপক্ষ রেখে দিবে।

চাইরিস ওয়েবসাইটের লিংক: www.chairish.com

৩. ওওডলে (Oodle)

CedCommerce

ওওডলে এমন একটি মার্কেটপ্লেস যা সাধারণত বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে অনলাইন বিজ্ঞাপনগুলোকে শ্রেণীবদ্ধভাবে পুনঃপ্রতিষ্ঠিত করে থাকে। আপনার যেকোনো ধরনের পণ্য বিক্রয় জন্য উপযুক্ত একটি মার্কেটপ্লেস হলো ওওডলে। এখানে আপনি অন্যান্য বিক্রেতাদের কাছে থেকেও নতুন নতুন পণ্যও ক্রয় করতে পারবেন।

ওওডলে ওয়েবসাইটে আপনি খুব সহজেই আপনার পণ্যের কাস্টমার খুঁজে পাবেন, কারণ এখানে প্রতিমাসে অন্ততপক্ষে ১৫ মিলিয়ন ক্রেতা-বিক্রেতা ভিড় জমায়। অতএব, ঘরের অতিরিক্ত আসবাবপত্র বের করুন আর সহজেই নগদ অর্থ আয় করুন।

ওওডলে ওয়েবসাইটের লিংক: www.oodle.com

৪. গ্যাজেট সেলভ্যাশন (Gadget Salvation)

আপনার ব্যবহৃত ল্যাপটপ, ম্যাকবুক, আইফোন, স্মার্টফোন অথবা অন্য কোনো ইলেক্ট্রনিক পণ্য বিক্রি করতে চাইছেন কিন্তু কাস্টমার খুঁজে পাচ্ছেন না? বা কাস্টমার পেলেও দরে মিলছে না? তাহলে এখনি গ্যাজেট ওয়েবসাইটে আপনার ডিভাইসের জন্য সন্ধান করুন। আপনার ডিভাইস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করুন এবং ওয়েবসাইটের চেকআউট ফর্মটি পূরণ করুন। আপনার পণ্যটি বিক্রি হলে বিক্রয়কৃত অর্থ আপনাকে চেক বা পেপ্যালের মাধ্যমে প্রদান করা হবে।

গ্যাজেট ওয়েবসাইটের লিংক: cashyourlaptop.com

৫. বিক্রয় ডট কম (Bikroy.com)

Dhaka Tribune

বিক্রয় ডট কম এমন একটি মার্কেটপ্লেস যেখানে আপনার ব্যবহৃত যেকোনো ধরনের জিনিসপত্র ক্রয়-বিক্রয় করতে পারবেন। এমনকি এই মার্কেটপ্লেসে ব্যবহৃত পণ্যের পাশাপাশি নতুন পণ্যও ক্রয়-বিক্রয়ের সুবিধা রয়েছে। বিক্রয় ডট কমের আরেকটি উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট হলো এই ওয়েবসাইটে কোনো জিনিস বিক্রি করলে বা ক্রয় করতে হলে আপনি সরাসরি কাস্টমার/বিক্রেতার সাথে যোগাযোগ করে আপনার পণ্য ক্রয়/বিক্রয় করতে পারবেন। এতে ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষের কোনো হস্তক্ষেপ থাকে না বিধায় বিক্রয়কৃত সম্পূর্ণ অর্থই আপনি ভোগ করতে পারবেন।

বিক্রয় ডট কম ওয়েবসাইটের লিংক: bikroy.com

৬. ভ্যালোর বুকস (Valore Books)

আমাদেরকে প্রত্যেক সেমিস্টারেরই নতুন নতুন পাঠ্যবই কিনতে হয়। এবং আগের সেমিস্টারের অধিকাংশ বই আমাদের আর প্রয়োজন হয় না বা আমরা পড়ি না। সেগুলো বুকসেলফে পড়ে থাকে বছরের পর বছর। কিন্তু আপনি চাইলেই আপনার সেই পুরনো বইগুলো বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করতে পারেন। অথবা সেই অর্থ দিয়েই আপনি আপনার পরবর্তী সেমিস্টারের জন্য প্রয়োজনীয় বইগুলো স্বল্প মূল্যেই ক্রয় করতে পারেন।

পুরনো বই বেচা-কেনার সবচেয়ে উৎকৃষ্ট ও জনপ্রিয় একটি ওয়েবসাইট হলো ভ্যালোর বুকস। যেখানে আপনি আপনার পুরোনো বইগুলো বিক্রিও করতে পারবেন আবার চাইলে সুলভ মূল্যে বিভিন্ন ধরনের বই ক্রয় করতে পারবেন।

ভ্যালোর বুকস ওয়েবসাইটের লিংক: valorebooks.com

৭. কারড্যাডি (CarDaddy)

আপনার যদি কোনো পুরনো যানবাহন থাকে এবং আপনি যদি ভালো দামে সেটি বিক্রি করতে চান তাহলে কারড্যাডি ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারেন। এখানে আপনি যেকোনো ধরনের যানবাহন সহজেই বিক্রি করতে পারবেন এবং আপনি এই ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন ধরনের যানবাহন ক্রয়ও করতে পারবেন। এই ওয়েবসাইটে ক্রয়-বিক্রয় করার মাধ্যমে আপনি নিরাপদ একটি অনলাইন শপিংয়ের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারবেন, এখান থেকে আপনার যাবতীয় তথ্য কোথায় শেয়ার করা হয় না।

কারড্যাডি ওয়েবসাইটের লিংক: cardady.com

ফিচার ইমেজ: Medium.com

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Loading…

0

Comments

0 comments

চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা করার ক্ষেত্রে কিছু পরামর্শ

বেকারত্ব দূরীকরণে ডিজিটাল মার্কেটিং শিখুন এবং ক্যারিয়ার গড়ুন